বিয়ানীবাজারে প্রবাসীর বাড়ির সিসি ক্যামেরায় চোর সনাক্ত : আটকের পর পুলিশে সোপর্দ

330

বিয়ানীবাজার উপজেলায় এক প্রবাসীর বাড়িতে চুরি করতে গিয়ে ধরা খেল চোর। উত্তম-মধ্যম দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে তাকে।

উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের তাজপুর গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী কামরুল হাসান মাসুদ (মাসুক)-এর বাড়িতে শুক্রবার (২২ নভেম্বর) ভোর রাতে চুরি করতে ঢুকে চোর সুমন পাল। জানালার গ্লাস ভেঙে ভেতরে ঢুকতে না পেরে মাসুকের বড় ভাই হাজী ফয়জুর রহমানের ঘরে ঢুকার চেষ্টা করে। এ সময় বাড়ির লোকজন বিষয়টি বুঝতে পারলে চোর সুমন পাল পালিয়ে যায়। বিষয়টি ডেইলি সিলেটকে জানান মাসুকের ভাতিজা ও ফয়জুর রহমানের ছোট ছেলে প্রবাসী ইফতেখার হোসাইন লিমন।

লিমন বলেন, বাড়ির সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে আমরা চোর সনাক্ত করি। তার নাম সুমন পাল। সে উপজেলার পাতারিপাড়া এলাকার বাসিন্দা। পরে চোর সুমন পালকে ধরতে তাজপুর ও আশ-পাশের গ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় তল্লাশি চালাই। গতকাল রোববার (২৪ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের তাজপুর নয়াবাজার এলাকার একটি দোকানে লুডু খেলা অবস্থায় তাকে পাওয়া যায়। এ সময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় চোর সুমন পালকে আমরা আটক করতে সক্ষম হই। সুমন পাল আমাদের বাড়িতে চুরির চেষ্টার কথা স্বীকার করেছে। তাকে বিয়ানীবাজার থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানালেন প্রবাসী লিমন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সুমন পাল আন্ত ডাকাত দলের সদস্য। যুক্তরাজ্য প্রবাসী কামরুল হাসান মাসুদ (মাসুক)-এর বাড়িতে ঢুকার সময় তার সাথে আরো ৬/৭ জন সহযোগি ছিলেন। তাদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলেও জানালেন বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর।