সিলেটের মেয়র আরিফের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আন্দোলনে পরিবহণ শ্রমিকরা

356

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছেন সিলেটের পরিবহণ শ্রমিকরা।

রবিবার  (০১ ডিসেম্বর) বেলা ১২টার দিকে নগরীর কোর্ট পয়েন্টে সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে মেয়র কর্তৃক সিলেট নগরীর সিএনজি অটোরিকশা পার্কিংয়ের স্থানগুলো উচ্ছেদ করে সিটি বাস সার্ভিসের কাউন্টার নির্মাণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাজপথে নামেন পরিবহণ শ্রমিকরা।

এসময় সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. জাকারিয়া বলেন, মেয়র আরিফ সিলেটের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করতে চাইছেন। পরিবারের লোকজনদের দিয়ে গঠন করা সিটি বাস সার্ভিস পরিচালনার জন্য তিনি সিএনজি চালিত অটোরিকশাগুলোর পার্কিয়ের স্থানে কাউন্টার নির্মাণ করতে চাইছেন। যা কখনোই শ্রমিকরা মেনে নেবে না। বাস চালান আর ট্রেন চালান, শ্রমিকদের পেটে লাথি মেরে কোন কাজ করতে দেয়া হবে না।

বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার যেখানে দেশে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে, সেখানে সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিচ্ছেন। তিনি সিএনজি চালিত অটোরিকশাগুলোর পার্কিয়ের স্থানগুলো উচ্ছেদ করে হাজার হাজার শ্রমিককে পথে বসিয়ে নিজে লাভবান হতে চাইছেন।

এসময় শ্রমিক নেতারা বলেন, একাধিকবার তারা এসব বিষয় নিয়ে মেয়রের সাথে বৈঠক করেছেন। কিন্তু বৈঠক শেষ করেই মেয়র সিদ্ধান্তগুলো ভুলে যান এবং নিজের ইচ্ছামত কাজ শুরু করেন। তাই এখন আর পরিবহণ শ্রমিকরা তার সাথে কোন বৈঠকে বসবে না। প্রশাসনের উপস্থিতিতে কোন বৈঠক হলে সে বৈঠকে যাবেন তারা।

এসময় সিলেট জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. জাকারিয়া বলেন, মেয়র আরিফ সিলেটের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করতে চাইছেন। পরিবারের লোকজনদের দিয়ে গঠন করা সিটি বাস সার্ভিস পরিচালনার জন্য তিনি সিএনজি চালিত অটোরিকশাগুলোর পার্কিয়ের স্থানে কাউন্টার নির্মাণ করতে চাইছেন। যা কখনোই শ্রমিকরা মেনে নেবে না। বাস চালান আর ট্রেন চালান, শ্রমিকদের পেটে লাথি মেরে কোন কাজ করতে দেয়া হবে না।

বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার যেখানে দেশে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে, সেখানে সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিচ্ছেন। তিনি সিএনজি চালিত অটোরিকশাগুলোর পার্কিয়ের স্থানগুলো উচ্ছেদ করে হাজার হাজার শ্রমিককে পথে বসিয়ে নিজে লাভবান হতে চাইছেন।

এসময় শ্রমিক নেতারা বলেন, একাধিকবার তারা এসব বিষয় নিয়ে মেয়রের সাথে বৈঠক করেছেন। কিন্তু বৈঠক শেষ করেই মেয়র সিদ্ধান্তগুলো ভুলে যান এবং নিজের ইচ্ছামত কাজ শুরু করেন। তাই এখন আর পরিবহণ শ্রমিকরা তার সাথে কোন বৈঠকে বসবে না। প্রশাসনের উপস্থিতিতে কোন বৈঠক হলে সে বৈঠকে যাবেন তারা।

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে সুষ্ঠু সমাধান না হলে কঠোর আন্দোলনে নামারও হুশিয়ারি দেন শ্রমিকরা।