ঢাকা-ম্যানচেস্টার রুটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সরাসরি ফ্লাইট চালু

567

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফের শুরু হল ঢাকা-ম্যানচেস্টার রুটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট চলাচল। ২০১২ সালে উড়োজাহাজ স্বল্পতার কারণে ঢাকা-ম্যানচেস্টার রুটে ফ্লাইট বন্ধ করে দিয়েছিল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বন্ধ হয়ে যাওয়া ওই রুটে দীর্ঘদিন পর আবারো ফ্লাইট চালু করল জাতীয় পতাকাবাহী এয়ারলাইন্স সংস্থাটি।

আজ রবিবার (০৫ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে নতুন এ রুটে বিজি ০০৭ ফ্লাইট উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী৷ ফলে প্রায় আট বছর বন্ধ থাকার পর ঢাকা ও যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারের মধ্যে সরাসরি বিমান চলাচল শুরু হয়েছে।

এই ফ্লাইটটি ম্যানচেস্টার থেকে ফেরার পথে সরাসরি সিলেট আসবে আগামীকাল সোমবার। বেলা ১২টার দিকে বিমানটি সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে অবতরন করবে বলে জানিয়েছেন ওসমানী বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক হাফিজ আহমদ।

বিমান বাংলাদেশের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বিমান বহরে সদ্য সংযোজিত বোয়িং ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার দিয়ে ঢাকা-ম্যানচেস্টার রুটে সপ্তাহে ৩ দিন-রবিবার, মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ বিমান ফ্লাইট পরিচালনা করবে।

যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারে প্রায় ৯০ হাজার বাংলাদেশী বসবাস করেন। তাদের অনেক দিনের আকাঙ্খা ছিল ঢাকা-ম্যানচেস্টার রুটে বিমানের ফ্লাইট। এটি বিমানের ১৭তম রুট।

নতুন বোয়িং ৭৮৭-৯ এ সর্বমোট আসন সংখ্যা ২৯৮টি। এ উড়োজাহাজে ৩০টি বিজনেস ক্লাস, ২১টি প্রিমিয়াম ইকোনমি ক্লাস এবং ২৪৭টি ইকোনমি ক্লাস রয়েছে।বিমানের বহরে বর্তমানে ৬টি ড্রিমলাইনারসহ মোট ১৮টি উড়োজাহাজ রয়েছে। বিমান কর্তৃপক্ষ মনে করে, যুক্তরাজ্যের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী এবং ইউরোপগামী বিভিন্ন দেশের ভ্রমণপিপাসু, শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা বিমান বহরের আধুনিক এ উড়োজাহাজগুলোতে ভ্রমণে আকৃষ্ট হবেন। 

বিমানের মোবাইল অ্যাপস ব্যবহার করেও যাত্রীরা নিজের মোবাইল থেকেই কিনতে পারবেন বিমানের সকল গন্তব্যের টিকেট। মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন বিকাশ বা রকেট বা যেকোন কার্ডের মাধ্যমে। গুগল প্লে স্টোর অথবা অ্যাপল স্টোর থেকে যে কোন স্মার্টফোনে অ্যাপসটি ডাউনলোড করলে পৃথিবীর যেকোন প্রান্ত হতে বিমানের ফ্লাইট সংক্রান্ত সকল তথ্য পাওয়া যাবে।

ঢাকা-ম্যানচেস্টার রুটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মহিবুল হক, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোকাব্বির হোসেন, বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মফিদুর রহমান প্রমুখ।