করোনা আতঙ্কের মধ্যেই ‘দ্বিতীয় পৃথিবী’র খোঁজ পেল নাসা

423

এক পৃথিবী যেখানে করোনা মহামারীতে থরহরিকম্প, সেখানেই আরেক পৃথিবীর সন্ধান দিল বিজ্ঞানীরা। আজ্ঞে হ্যাঁ, নাসার বিজ্ঞনীরা সম্প্রতি এমন এক গ্রহের খোঁজ পেয়েছে যেটি পৃথিবীর মতই। এখানেও জল ধারণের ক্ষমতা আছে বলে দাবি করেছে তারা। আর এই কারণেই একে দ্বিতীয় পৃথিবী বলা হচ্ছে।

নাসা তাদের কেপলার টেলিস্কোপে তোলা ছবি বিশ্লেষণ করে এই তথ্য দিয়েছে। নাসার তরফে বলা হয়েছে এই গ্রহ (Kepler-1649c) পৃথিবী থেকে ৩০০ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। এবং এখানে হ্যাবিট্যাবল জোনের খোঁজ পাওয়া গেছে। যা ওই গ্রহে জলের সন্ধান দেয়। পাশাপাশি পৃথিবীর আকার ও তাপমাত্রার সাথেও এই গ্রহের মিল আছে বলে দাবি করা হয়েছে।

মহাকাশবিদদের মতে, এই গ্রহের তাপমাত্রা পৃথিবীর মতই। এই গ্রহ তার নক্ষত্র থেকে ৭০-৭৫ শতাংশ আলো ও তাপ পায়। আপনাকে জানিয়ে রাখি পৃথিবী সূর্য থেকে যে তাপ পায় তার প্রায় ৩৪ শতাংশ মেঘের দ্বারা আবার মহাকাশে ফেরত যায় এবং পৃথিবী প্রায় ৬৬ শতাংশ নিজে থেকে পাঠিয়ে দেয়।

এদিকে নতুন এই গ্রহ পৃথিবী থেকে প্রায় ১.০৬ গুন বড় বলে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছে। যদিও এখন সবে ছবি বিশ্লেষণ করেই এই তথ্য পাওয়া গেছে। নাসা এখনও এই বিষয়ে আরও গবেষণা করবে। আর সেই গবেষণায় যদি সত্যি সত্যি খোঁজ মেলে দ্বিতীয় পৃথিবীর, তাহলে বিজ্ঞানের আরও একটি নব আবিষ্কারের মুখোমুখি হব আমরা।